শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১১ পূর্বাহ্ন

টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে আব্দুল খালেক নামের এক যুবক
Reporter Name
Update : শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

সত্যখবর ডেস্ক । ২৫ এপ্রিল ২০২১ ।

ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলায় টাকার অভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে স্ত্রীর ওড়না গলায় পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক যুবক।শনিবার উপজেলার আড়াইলিয়া গ্রামে নিজ ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।নিহত যুবকের নাম আব্দুল খালেক (২৪) তিনি ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ আড়াইলিয়া গ্রামের আবু কালামের ছেলে।

 

জানা যায় গত ৪-৫ মাস আগে থেকে আব্দুল খালেকের মূত্রথলিতে ব্যথা। তিনি বরিশাল গিয়ে চিকিৎসা করান।  সে সময় তিনটি পাথর ধরা পড়ে।কিছু দিন হলো বরিশালের এক চিকিৎসক একটি পাথর বের করে পাইপ লাগিয়ে দেন এবং বাকি পাথর বের করার জন্য আবারও যেতে বলেন। কিন্তু টাকার অভাবে আব্দুল খালেক বরিশাল যেতে পারছিলেন না।গত শুক্রবার থেকে তার ব্যথা বেড়ে যায়।

 

এতে রাতে তিনি ঘুমাতে পারেন না। সারারাত ব্যথার যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকেন।শনিবার দুপুরে বাড়ির সবাই অন্যের জমিতে ডাল ও মরিচ তুলতে গেলে এই সুযোগে তিনি স্ত্রীর ওড়না আড়ার সঙ্গে পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।তজুমদ্দিন থানার ওসি এসএম জিয়াউল হক জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ সংবাদ
copyright protected
%d bloggers like this: