মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৪:৪১ অপরাহ্ন

গাড়ির ছাদে বাবার দেহ অন্ত্যেষ্টির জন্য নিয়ে যাচ্ছে সন্তান
Reporter Name
Update : মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১

সত্যখবর ডেস্ক ২৬ এপ্রিল ২০২১ ।

ভারতে কোনো হাসপাতালেই পাওয়া যাচ্ছে না পর্যাপ্ত অক্সিজেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিরোধী দলীয় নেতা বা মুখ্যমন্ত্রীরা অভিযোগটি অনেক আগেই তুলেছেন। যদিও উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ দৃপ্ত কণ্ঠে ঘোষণা করেছেন, আমার রাজ্যে অক্সিজেনের কোনো ঘাটতি নেই।এবার সেই যোগীর রাজ্যের এমন দুটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সংবাদমাধ্যমে ভেসে উঠেছে, যা দেখলে তার দাবি নিয়ে সন্দেহ জাগতেই পারে। একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, গাড়ির ছাদে বাবার দেহ অন্ত্যেষ্টির জন্য নিয়ে যাচ্ছেন সন্তান।

 

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি লাল সেডানের ছাদে সাদা চাদরে মোড়া একটি দেহ। এটি আগ্রার মোহিত নামের এক ব্যক্তির বাবার দেহ বলে জানা গিয়েছে। যিনি সম্প্রতি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। যদিও তারা শেষকৃত্যের জন্য শব নিয়ে যাওয়ার কোনো গাড়ি পাননি।শেষ পর্যন্ত নিজেদের গাড়ির ছাদে বাবার দেহ বেঁধে আগ্রার মোক্ষধামে নিয়ে যান শেষকৃত্যের জন্য। তবে এটি কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়।

 

উত্তরপ্রদেশে শেষকৃত্যের জন্য শ্মশানের বাইরে রীতিমতো টিকিট কেটে দীর্ঘ অপেক্ষা করতে হচ্ছে মানুষকে।সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া আর একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, শুয়ে থাকা এক ব্যক্তির মুখে মুখ লাগিয়ে অক্সিজেন দেওয়ার চেষ্টা করছেন এক মহিলা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিটি প্রকাশ করে দাবি করা হয়েছে, ওই ব্যক্তির শ্বাসকষ্ট শুরু হয়েছিল। কিন্তু কোথাও অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছিল না।

 

তাই স্বামীকে বাঁচাতে নিজের মুখ দিয়েই কৃত্রিম ভাবে শ্বাসপ্রক্রিয়া চালানোর চেষ্টা করছিলেন সেই মহিলা।যদিও শেষ পর্যন্ত নাকি তাকে আর বাঁচানো যায়নি। এটিও উত্তরপ্রদেশের আগ্রার ঘটনা বলে দাবি করা হয়েছে টুইটে।মহামারি করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উত্তরপ্রদেশে এরই মধ্যে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হয়ে গিয়েছে। সমাজবাদী পার্টি নেতা রামগোপাল বাঘেল রাজ্যের এই পরিস্থিতির জন্য রাজ্য এবং কেন্দ্র সরকারের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন।তার অভিযোগ, এই অতিমারীর পরিস্থিতি সামাল দিতে বিজেপি সর্বতো ভাবে ব্যর্থ। আর বিজেপি মানুষকে বিভ্রান্ত করছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ সংবাদ
copyright protected
%d bloggers like this: