বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন

কয়া ইউনিয়নে শশুরের মাদক ব্যবসা নিয়ন্তন করছে জামাই এনাই
নিউজ ডেস্ক
Update : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১

সত্যখবর ডেস্ক  । ২৭ মে ২০২১ ।

কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের বানিয়াপাড়ায় হাত বাড়ালেই মিলছে মাদকদ্রব্য। নিষিদ্ধ ইয়াবা, গাজা ও  ট্যাপেন্ডাতে  ডুবে থাকছে কয়া ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রাম। আর এই মাদকের ভয়াল থাবায় পড়ছে   উচ্চবিত্ত থেকে শুরু করে নিম্নবিত্ত মানুষসহ স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্ররা।হাতের কাছেই মাদবদ্রব্য পাওয়ায় বানিয়াপাড়া সহ আশে পাশের গ্রামগুলোতে মাদকাসক্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। বিভিন্ন মাধ্যমে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা নিয়ে আসছে কয়া ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া গ্রামরে সোবাহানের ছেলে এনাই।

 

একালাসূত্রে জানাযায়, এনাই এর শশুর কুষ্টিয়া জেলার আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী মিলু । মাদকসহ মিলু  র‌্যাব ও পুলিশের  হাতে কয়েক বার আটক হয়েছে। বর্তমানে মিলুর ইয়াবা সিন্ডিকেট সর্ম্পন্ন নিয়ন্তন করছে এনাই। এনাই কক্সবাজার থেকে ইয়াবা নিয়ে এসে বানিয়াপাড়া এলাকার মৃত নওসের ফারাজির ছেলে মিনার, মৃত সাজেদ আলীর ছেলে রাসিদুল ও আফজালের ছেলে আলতাপ এদের কাছে ইয়াবা বিক্রি করার জন্য দেয়। মিনার, রাসিদুল ও আলতাপ এরা মূলত এনাই এর সেলসম্যান  হিসাবে কাজ করে এবং নিজ দ্বায়িক্তে মাদক সেবন কারিদের কাছে ইয়াবা পৌছে দেয়।

 

পৌছে দেবার জন্য এদের মোটা কমিশন ও  ইয়াবা সেবন ফ্রিতেই হয়ে যায়।এ ব্যাপরে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, মাদকের ব্যাপারে কোন ছাড়নেই। অপরাধী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে ।এলাকায় উঠতি বয়সের তরুণ ও যুবকের মধ্যে মাদকসেবীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় অভিভাবক মহল উদ্বিগ্ন-উৎকণ্ঠায় আছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, ক্ষমতাসীন দলের নাম ব্যবহার করে কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের মাধ্যমে মাদক ব্যবসা করছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ সংবাদ
copyright protected
%d bloggers like this: