বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১০:১২ পূর্বাহ্ন

ডা. বাপ্পি ও তার স্কুল জীবনের সহপাঠি,অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর
এইচ রহমান
Update : বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১

সত্যখবর ডেস্ক ।। শুক্রবার, ০৯ জুলাই ২০২১, ২৫ আষাঢ় ১৪২৮ ।

আমরা সবাই জানি কোভিড ১৯ এর মারাত্মক ছোবলে সারা দেশ প্রায় থমকে গেছে। প্রতিদিন দীর্ঘ হচ্ছে করোনায় মৃত্যুর তালিকা। ভয়াভহ আতঙ্কের মধ্যে জনজীবন হয়ে উঠেছে একরকম বিপর্যস্থ। দেশের হাসপাতালগুলোয় ধারণ ক্ষমতার অনেক বেশি রোগীর চাপ সামলাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসক, নার্সসহ সংশ্লিষ্টি সকলকে। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সর্বোচ্চ আন্তরিকতা ও চেষ্টা সত্বেও কখনও কখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রেণে রাখা দূরুহ  হয়ে উঠছে।দ্রুত করোনা সংক্রমণে বিপর্যস্থ জেলাগুলোর মেধ্যে কুষ্টিয়া অন্যতম।

বর্তমান পরিস্থিতিতে এ সংকট উত্তরণে সরকারের পাশাপাশি ব্যাক্তি বা সম্মিলিত উদ্যোগ  অত্যন্ত প্রয়োজন-এ সত্য অনুধাবন করে কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের স্বনামধন্য চিকিৎসক, কুষ্টিয়ার কৃতি সন্তান ডা. নাসিমুল বারী বাপ্পি স্থাপন করেছেন অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত। দেশে করোনার প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে জীবন বাজী রেখে চিকিৎসা সেবা দেয়া সম্মুখসারির করোনা যোদ্ধাদের মধ্যে অন্যতম একজন ডা. বাপ্পি। সদালাপী, সৎসাহসী, কর্তব্যপরায়ণ, ভীষণ আন্তরিক, নিঃস্বার্থ পরোপকারী ও দানশীল ডা. বাপ্পি একেবারেই প্রচারবিমুখ একজন মানুষ।

সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাওয়াটাই যার জীবনের পরম লক্ষ্য। সম্প্রতি কুষ্টিয়া হাসপাতালে করোনা রোগীর চিকিৎসায় ব্যবহৃত অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলার ব্যাপক প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে ডা. বাপ্পি তার স্কুল জীবনের সহপাঠি বন্ধুদের সম্মিলিত সহায়তার জন্য উৎসাহিত করে। ফলাফল বন্ধুদের একজন সমন্বয়কের দায়িত্ব নিয়ে সম্মিলিত অনুদানে অতি দ্রুত ২০টি অক্সিজেন সিলিন্ডার ও একটি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলার ব্যবস্থা করে দেয়, যেগুলি গত ৮ জুলাই ডা. বাপ্পি বন্ধুদের পক্ষে থেকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করে।

বন্ধুদের এ কার্যক্রম এখানেই থেমে যাবেনা বরং সামর্থানুযায়ী চালু থাকবে যাতে অন্যরাও উৎসাহিত হয়। প্রবাসী বন্ধুদের হাত বাড়ানোটা অতি আনন্দের অনুভুতি দিয়েছে নিঃসন্দেহে। ইতিপূর্বে ডা. বাপ্পির আন্তরিকতা এবং প্রায় একক প্রচেষ্টায় বন্ধুমহল, রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক শুভানুধ্যায়ীদের সম্মিলিতি সহযোগিতায় কুষ্টিয়া হাসপাতালে চালু হয়েছিলো করোনারী কেয়ার ইউনিট (CCU) যা হৃদরোগ চিকিৎসায় নতুন দ্বার উস্মুক্ত করেছিলো কুষ্টিয়াবসীর জন্য।

মনে পড়ে সেই সময় ডা. বাপ্পির একরকম অধিকার মিশ্রিত দাবিতে CCU এর জন্য প্রয়োজনীয় ১৬টি অত্যাধুনিক বেড আমরা বন্ধুরা দিতে পেরে ভীষণ মানসিক প্রশান্তি অনুভব করেছিলাম। সেবাপরায়ন সাদা মন, পরোপকারে আন্তরিকতা, মানুষের প্রতি দুর্বার ভালোবাসা আর চিকিৎসক হিসেবে সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতাই পারে এমন নিঃস্বার্থ দাবি আদায় করে নিতে। হাসপাতাল এবং রোগীদের কল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ ডা. বাপ্পি যে কোন ভালো উদ্যোগে পাশে পেয়েছেন কুষ্টিয়াবাসীর অভিভাবক, প্রাণপ্রিয় নেতা সংসদ সদস্য জনাব মাহবুবুল আলম হানিফ, জনাব আতাউর রহমান আতাসহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গকে।

করোনা মহামারির এই ভয়ঙ্কর দুঃসময়ে ডা. নাসিমুল বারী বাপ্পি গরীব ও অসহায় মানুষের সেবায় যেভাবে নিজেকে উৎসর্গ করেছে তা দেখে অন্যরাও অনুপ্রাণিত হবে এবং নিজ নিজ জায়গা থেকে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে-এই আশা আমাদের সবার। “মানুষ মানুষের জন্য”-এসত্য প্রমাণের উপযুক্ত সময় এখনই । মহান আল্লাহ তায়ালা ডা. বাপ্পির মেধা ও শ্রমকে কবুল করে, সুস্থ, সুন্দর, কর্ম মুখর, দীর্ঘ ও সফল জীবন দান করুন-এই প্রার্থনা সবসময়।স্কুল জীবনের সহপাঠি বাপ্পির বন্ধু হিসেবে গর্বিত আমরা বন্ধুরা সবসময় হৃদমাঝারে জমিয়ে রাখি ওর জন্য সীমাহীন ভালোবাসা আর শুভকামনা। শত ব্যস্ততার মাঝেও বন্ধুদের যে কোন প্রয়োজনে তাৎক্ষণিক সাড়া দেয়ার দুর্লভ ক্ষমতা আমাদের অবাক করে কখনও কখনও, হয়তো মনের কোথাও একটু অহংকারও বোধ করি।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ সংবাদ
copyright protected
%d bloggers like this: